শিখা

শিখা
মারুফ আহম্মেদ

এই জীবন গল্প সিরিজটি সুজনের জীবনের অভিজ্ঞতা গুলো দিয়ে সাজানো
প্রতিটি পর্ব পড়তে সাথেই থাকুন

সুজন খুব গরিব ঘরের একটা ছেলে । তারপরেও স্বপ্ন ছিলো ঢাকায় গিয়ে পড়কশোনা করে ভালো একটা চাকরি করবে। মা বাবার সম্মতি ছিলো কিন্তুু উপায় ছিলো না।  ভাবলো টাকার জন্যে তার স্বপ্ন বিথা যাবে? কখনো না! সুজন তখন ১০ম শ্রেণীতে পড়ে। মনে মনে ছিলো পরিক্ষা দিয়েই ঢাকায় চলে যাবে, আর ঠিক একটা সময় চলেও এসেছিলো হঠাৎ করে। ভর্তি হলো ঢাকা কলেজে ইন্টার ফাস্ট ইয়ারে। প্রথম দিকটা খুব ভালই চলছিলো। হঠাৎ বাবা অসুন্ত হয়ে পড়লো আর তখন থেকে শুরু হলো সুজনের জীবনের নতুন অধ্যায়।
এর মধ্যে দ্বিতীয় বর্ষ চলে এলো । পড়ার খরচ নিয়ে খুব টানাটানি পড়ে গেলো, বাসায় বাবা অসুস্ত টাকা দেবে কে?  গ্রামের একটা ভাইয়ের সাথে যোগাযোগ করে মাঠের ফ্যক্টরিতে কাজ শুরু করলো, কাজ একটু কম পারতো কারন অনেক ভারি কাজ ছিলো, কিন্তুু একদিন মালিক কাজে আর আসতে নিষেধ করে দিলো,  সুজন ছোট, তো সহজ একটা কাজ দেওয়া যেতো!  কয়দিন কান্না কাটির পরে সেই ভাই একটা মুদির দোকানে ঠিক করে দিলো, ভালই কাজ চলছিলো ৬ মাস, মালিকের পছন্দ মতো হয়ে গেলো সুজন, দেখলো যে টাকা আমি বেতন পাই তা দিয়ে কখনো পড়া লেখার খরচ ও বাবার চিকিংসার খরচ চালাতে পারবে না সে, তাই যারা ধনী তারা চাউল কিনলে মাথায় করে তাদের বাসায় পৌছায়ে দিয়ে আসা শুরু করলো, কখনো ৬ তলা কখনো ৭ তলা উঠতো, তবে সব থেকে কষ্ট লাগতো যেখানে, এতো কষ্ট করে উঠতো বাসার দরজার কাছে গিয়ে নক করলে দরজা খুলতো না দেরি করতো খুব। কিন্তুু একদিন মালিক জানতে পারে সুজন পড়ালেখা করে। সে জন্যে এই কাজটা থেকে সুজনকে বাদ দিলো । এমনি করে সে কাজটাও হারালো, তার পরে ভাবলো ভ্যান চালাবে। একটা মালিকের সাথে কথা বলে দিনে ২৫০ টাকা দিতে হবে  আর বাকি সব সুজনের।  চালাচ্ছিলো কয়দিন চালানোর পরে ধোকা দিয়ে সুজনকে ডেকে নিয়ে ভ্যানটা চুরি করে নেয়, তখন তার পকেটে মাত্র ১৫ টাকা ছিলো। আল্লাহ তার সাথে কেনো এমন করলো, তখনই সুজনের মা ফোন দিয়ে বলে কি হয়েছে বাপ তোর?  কিছু হয়েছে তোর? আমি বললাম না মা কিছু হয়নি তো। সন্তানের কিছু হলে মা আগে জেনে যায়। আসলেই ঠিক,  তখন আমার দুচোখে কিছু দেখতে পাচ্ছিলনা, বুকটা ফেটে যাচ্ছে এই শহরে সুজনের মত অসহায় আর কেউ নেই…
কিন্তুু আজ আমি ভার্সিটিতে পড়ে,
অনেক কষ্ট করার পরে আজকে সফল হয়েছে সুজন….!!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

0
    0
    Your Cart
    Your cart is emptyReturn to Shop